কারা হেফাজতে খেলাফত মজলিশের সভাপতির মৃত্যু

সোনারগাঁয়ের মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ডে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে হামলা, ভাঙচুর এবং মহাসড়কে নাশকতার মামলার এজাহারভুক্ত গ্রেপ্তারকৃত আসামি হেফাজতে ইসলামের সোনারগাঁ থানার সাবেক সহসভাপতি ও খেলাফত মজলিসের সভাপতি ইকবাল হোসেন (৫৫) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলে জানিয়েছে তার পরিবার।আজ সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান বলে তারা জানান।গত ৩ এপ্রিল হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে সোনারগাঁ উপজেলার রয়্যাল রিসোর্টে নারীসহ ঘেরাও করার ঘটনার পর পুলিশের ওপর হামলা-ভাঙচুর ও আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় ও দুই যুবলীগ নেতার বাড়িঘর ভাঙচুর করার ঘটনায় দায়ের করা দুই মামলার প্রধান আসামিসহ পুলিশ বাদী হয়ে দুটি ও দুই ক্ষতিগ্রস্ত উপজেলা যুবলীগের নেতা রফিকুল ইসলাম নান্নু ও সোহাগ রনির দায়ের করা ছয়টি মামলার আসামি ছিলেন মাওলানা ইকবাল হোসেন।

ইকবাল হোসেনসহ উপজেলা হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মহি উদ্দিন খান উপজেলা হেফাজতে ইসলামের চার শীর্ষ নেতাকে গত ১১ এপ্রিল ঢাকার জুরাইন থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১১র সদস্যরা।ইকবাল হোসেন সোনারগাঁ থানায় দায়ের করা দুই মামলায় গত ১২ এপ্রিল তিন দিনের পুলিশ রিমান্ড শেষে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছিলেন। নারায়ণগঞ্জ কারাগারে আটক থাকা অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়ার কারণে গত ১১ মে ইকবাল হোসেনকে পুলিশ পাহারায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইকবাল হোসেন মারা যান।ইকবাল হোসেনের ভায়রা আলী খান জানান, হাসপাতালের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে আজ সন্ধ্যায় তার লাশ সোনারগাঁ পৌরসভার উদ্ববগঞ্জে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের জেলার শাহ রফিকুল ইসলাম ইকবাল হোসেনের মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তার শারীরিক অবস্থা অবনতি হওয়ার তাকে গত ১১ মে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

 

scroll to top