তাফসির আউয়ালের অবস্থান জানতে চান হাইকোর্ট!

প্যারাডাইস পেপারসে নাম আসা মাল্টিমোড গ্রুপের স্বত্বাধিকারী, বিএনপি নেতা আবদুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে তাফসির মোহাম্মদ আউয়ালের বর্তমান অবস্থান জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। তার অবস্থান হলফনামা আকারে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি জানাতে হবে।

আদেশের বিষয়টি কোর্ট নিউজ টুয়েন্টিফোরকে নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আজ পিটিশনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. সাকিব মাহবুব। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আন্না খানম কলি ও মো. সাইফুর রহমান সিদ্দিকী।ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক আদালতকে বলেন, তাফসির আউয়াল গত ৫ মে আদালতের অনুমতি নিয়ে তিনমাসের জন্য বিদেশ যান। এখনো দেশে ফিরে না এসে সময় বর্ধিত করার আবেদন করেন। তার আইনজীবী জানান তিনি বর্তমানে যুক্তরাজ্যে আছেন। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক।আদালত বলেন, আগে সে আদালতের আদেশ মতো দেশে আসুক।পরে হাইকোর্ট তার বর্তমান অবস্থান হলফনামা আকারে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি জানাতে আদেশ দিয়েছেন।

এর আগে গত ৬ ডিসেম্বর প্যারাডাইস ও পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে নাম আসা বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক দুর্নীতির তদন্ত সংস্থা বিএফআইইউ ও পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি কী পদক্ষেপ নিয়েছে, তা জানতে চেয়েছিলেন হাইকোর্ট।

পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা প্রতিবেদন আকারে জানাতে হাইকোর্ট নির্দেশ দেন। এর আগে ৪৩ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নামের তালিকা দাখিলের পর শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের একই বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

scroll to top